রবিবার, ৯ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ, ১৪৪১ হিজরি.
SKF Company

সংখ্যালঘু নির্যাতনের প্রতিবাদে নিউইয়র্কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

২৭-জুলা-২০২০ | usbd24saif | 207 views

বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন BNP কেও হার মানালো এই সরকার।

নিউইয়র্ক প্রতিনিধিঃ গতকাল ২৬ জু্লাই বিকেলে জ্যাকসন হাইটস, নিউইয়র্কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে রাঙ্গুনিয়ার ভুমিদস্যুদের গ্রেফতার ও শরণংকর ভিক্ষুকে বিহারে ফিরিয়ে নেবার দাবী জানান । চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় বৌদ্ধ বিহারের জমি দখলের জন্য বিহারে সন্ত্রাসী হামলা ও ভিক্ষুকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে অস্ত্রের মুখে এলাকা থেকে বিতাড়িত করার প্রতিবাদে নিউইয়র্কে তৃতীয় বারের মত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুস্ঠিত হয়।  মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ওলি  কর্তৃক ভগবান শ্রী রাম চন্দ্র ও জন্মভূমি অযোদ্ধ্যা নিয়ে বিতর্কের মন্তব্য করায়,বিশ্বের সনাতন ধর্মঅবলম্বীদের ধর্মীয় অনুভতিতে আঘাত আনায় মানববন্ধনে প্রতিবাদ ও নিন্দা জানায় হিন্দু ধর্ম সুরক্ষা পরিষদ ইউ এস এ। 

এসময় বক্তারা নিখিল তালুকদারের হত্যা কারীদের গ্রেফতার, বিশিষ্ট মানবাধিকার ব্লগার আসাদ নুরের পিতা-মাতাকে জিজ্ঞাসা বাদের নামে হয়রানি বন্ধ করা সহ মিথ্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার আহবান জানান। এসময় বক্তারা তাদের বক্তব্যে অনতিবিলম্বে ভদন্ত শরণংকর থেরকে ফলাহারিয়া জ্ঞান স্মরণ বৌদ্ধ বিহারে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি দাবী জানান।

মানববন্ধন  ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ক্ষমতাসীনদের ছ্ত্রছায়ায় এলাকার চিন্হিত সন্ত্রাসীরা বৌদ্ধ বিহারের জমি দখলের জন্য ভদন্ত শরণংকর থের কে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে রাঙ্গুনিয়া ফলাহারিয়া থেকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে বিতাড়িত করে। তিনি বর্তমানে রাউজান থানাধীন হোয়ারাপাড়া গ্রামে আশ্রয় নিয়েছেন। এঘটনার পর বাংলাদেশের বৌদ্ধ নের্তৃবৃন্দ এলাকার এমপি ড. হাসান মাহমুদ ও তার ভাই এরশাদ মাহমুদের সাথে কয়েক দফা বৈঠক করলেও ভান্তেকে ফলাহারিয়ায় ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে কোন উদ্যেগ নেয়া হয়নি । যার ফলে বিশ্বের প্রতিটি দেশের বৌদ্ধদের মধ্য চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে । বক্তারা সাম্প্রদায়িক ধর্মীয় উস্কানি দিয়ে সংখ্যা লঘুদের এলাকা থেকে বিতাড়িত করা, বাড়িঘর ও জমি দখলের বিরুদ্ধে কঠোর আইন করার দাবী জানান। এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী, ভুমিদস্যু এরশাদ গংদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবী জানান।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই ২০২০ তারিখে , রাঙ্গুনিয়া থানার পদুয়া,ফলহারিয়া জ্ঞান শ্মরণ বৌদ্ধ বিহার দখল করার উদ্দেশ্যে পুলিশ বাহিনী নিয়ে হামলা চালায় স্হানীয় সন্ত্রাসী এরশাদ বাহিনী। ক্ষমতসীন দলের একজন প্রভাবশালী ব্যক্তির প্রত্যক্ষ মদদে তারই ঘনিষ্ঠ ব্যক্তির নেতৃত্বে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা এ হামলা চালায় বলে জানা গেছে।

নিউইয়র্কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য করেন-হিন্দু কমিউনিটির নেতা  দীনেশ চন্দ্র  মজুমদার, বিশ্ব হিন্দু কমিউনিটির নেতা ও কলামিষ্ট শীতাংশু গুহ,হিন্দু কোয়ালিশন নেতা গোবিন্দ বানিয়া,বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের নেতা নিরময় তনচংগ্যা, জয় দত্ত, রাপুরু চাই মারমা, মং এ পুরু, মং কে সায়  ও  তপন চাকমা,হিন্দু সুরক্ষা পরিষদ নেতা প্রিয়তোষ দে, অশোক বড়ুয়া , সিদ্ধার্থ বড়ুয়া, বিধান পাল, উজ্জ্বল বড়ুয়া, দীপক দাস, সনজিৎ কুমার ঘোষ, প্রকাশ গুপ্তা, অংশু বৈদ্য,  ভজন সরকার, সমর রায়, পরেশ ধর, বানী পানি দে, নিপুন দত্ত, অমল বড়ুয়া, বিধান বড়ুয়া, সৌরভ বড়ুয়া, সবুজ বড়ুয়া,ইভান, শুভাশীষ, রনবীর, টিটু, সুবীর, শাফুল বড়ুয়া ও রমিত বড়ুয়া, শিশির সিংহ প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা  চট্রগ্রামে ভূমিদস্যু ও বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন প্রতিরোধে প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন ।

Spread the love

সার্চ/অনুসন্ধান করুন