বুধবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ই রবিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি.
SKF Company

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: চূড়ান্ত ফল হয়নি!

০৬-নভে-২০২০ | Dhaka Desk | 50 views
Shitangshu-Guh

শিতাংশু গুহ,নিউইয়র্কঃ ভোট শেষ হয়েছে মঙ্গলবার রাত ৯টায়, এখন রাত ১২টা বৃহস্পতিবার (কলকাতা শুক্রবার সকাল ১০টা ৩০মিনিট) (ঢাকা সকাল ১১টা শুক্রবার) ফলাফল অনিশ্চিত, ডেমক্রেট প্রার্থী জো বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প’র আশা ধূলিসাৎ হয়ে যাচ্ছে। জয়ের জন্যে দরকার ২৭০টি ইলেকটোরাল ভোট, বাইডেন ২৫৩, দরকার মাত্র ১৭টি; ট্রাম্প ২১৪টি। বাইডেন রেকর্ড পরিমান ভোট পেয়েছেন, প্রদত্ত ভোটের ৫০%’র বেশি এবং ট্রাম্প থেকে প্রায় ৩৫লক্ষ ওপরে। চূড়ান্ত ফলাফল হয়নি বটে, তবে ট্রাম্পের জন্যে জেতার অংকটি কঠিন হয়ে গেছে। 

অন্যদিকে কংগ্রেস বা হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভে রিপাবলিকানরা ভালো করেছেন, কিন্তু নিয়ন্ত্রণ ডেমক্রেটদের হাতেই থাকছে, আগেও তাই ছিলো। সিনেট ছিল রিপাবলিকানদের দখলে, এবারো তাই থাকছে। ট্রাম্প হারলে বা বাইডেন জিতলে হোয়াইট হাউস রিপাবলিকানদের হাত থেকে ডেমক্রেটদের হাতে যাবে। এদিকে ট্রাম্প ক্যাম্পেইন চারটি টেস্টে ভোট গণনা বন্ধ বা পুন্:ভোট গণনার জন্যে মামলা করেছে। হয়তো একারণে চূড়ান্ত ফলাফল পিছিয়ে যেতে পারে? 

নির্বাচনের দিন ফলাফলে দেখা যাচ্ছিলো ট্রাম্প এগিয়ে আছেন এবং জিতবেন। কিন্তু ‘মেইন-ইন’ ভোট সকল হিসাব পাল্টে দেয়। রেজাল্ট দেরি হওয়ার কারণও এই মেইল-ইন ভোট, এগুলো হাতে খুলতে হচ্ছে, পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে গণনা হচ্ছে এবং এবার এই ভোটের সংখ্যা কয়েক কোটি, তাই বিলম্ব। ট্রাম্প গোড়া থেকেই মেইন-ইন ভোটের বিপক্ষে ছিলেন, এবং এই ভোটে কারচুপি হতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, এখন সরাসরি বলছেন, ডেমক্রেটরা কারচুপি করেছে? 

এদিকে ভোটাররা নিউজার্সিতে মাদক মারিজ্যুনার ‘মেডিসিন’ ও বিনোদন’-মূলক ব্যবহার বৈধ করার পক্ষে রায় দিয়েছে। কলোরাডোতে ইলেকটোরাল ভোট বন্টন ব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে ‘প্রপোজিশন-১১৩’ পাশ হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পপুলার ভোটে জয়ী প্রার্থী সবগুলো ইলেকটোরাল ভোট পাবেন। বর্তমানে যিনি ষ্টেটে জয়ী হ’ন তিনি পা’ন। বুধবার রাতে বাইডেনের পক্ষে সমাবেশ কালে নিউইয়র্কে পুলিশকে গালি দেয়া ও থুথু ছিটানোর অপরাধে ‘দেবিনা সিং, ২৪’-কে গ্রেফতার হয়েছেন। 

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে প্রচারণা হচ্ছে যে তিনি ভোট গণনা বন্ধ করতে বলেছেন। আসলে তিনি বলেছেন যে, নির্বাচনের দিন পার হয়ে যাওয়ার পর প্রাপ্ত ভোট গণনা করা যাবেনা। এর কারণ হচ্ছে, বুধবার ফিলাডেলফিয়ায় ২৩০০০+ ভোট এসেছে, যার সবগুলো ভোট বাইডেন পেয়েছেন, ট্রাম্প একটিও পাননি। আবার নেভাদা-তে ৩০০০+ ভোট এসেছে, যাঁরা বেশ আগেই নোটিশ দিয়ে নেভাদা ছেড়ে অন্য ষ্টেটে চলে গেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এসব ভোট ‘অবৈধ’ আখ্যায়িত করেছেন। 

দি ইউএস সান নিউজ জানায়, ট্রাম্প বলেছেন, বৈধ ভোটে তিনি সহজেই জয়ী হবেন। ট্রাম্পের নির্বাচনী ক্যাম্পেইন বলেছে, বাইডেন যেসব ষ্টেট জিতেছেন, প্রতিটি ষ্টেটে মামলা হবে। আদালত মামলা আমলে নিলে নির্বাচনী ফলাফল ঝুলে যেতে পারে। মিশিগান আদালত ভোট গণনা বন্ধে ট্রাম্প ক্যাম্পেইনের মামলা খারিজ করে দিয়েছেন। এদিকে বরিশালে ট্রাম্প-বাইডেন সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া  এবং সংষর্ষ হয়েছে, এতে ৪জন আহত হয়েছে। 

সর্বশেষ অবস্থা: 

আরিজোনা, ১১ ইলেকটোরাল ভোটঃ বাইডেন এগিয়ে আছেন। মোট প্রদত্ত ভোটের ৯০ শতাংশ গণনা হয়েছে। বাইডেনঃ ৫০.১ শতাংশ। ট্রাম্পঃ ৪৮.৫ শতাংশ।

জর্জিয়া, ১৬ ইলেকটোরাল ভোট। ৯৯% গণনা হয়েছে। সমান-সমান। ট্রাম্পঃ ৪৯.৪। বাইডেনঃ ৪৯.৪।  

নেভাদা, ৬ ইলেক্টরেল ভোট। বাইডন এগিয়ে। বাইডেন ৪৯.৪। ট্রাম্প ৪৮.৪। ৮৪ শতাংশ গণনা সম্পন্ন। 

নর্থ ক্যারোলিনা, ১৫ ইলেকটোরাল ইলেকটোরাল ভোট। ট্রাম্প এগিয়ে, ৫০.১। বাইডেন ৪৮.৭। ৯৪ শতাংশ গণনা সম্পন্ন।  

পেনসিলভানিয়া, ২০ ইলেকটোরাল ভোট। ট্রাম্প ৫০.৭। বাইডেন ৪৮.৭। ৯৪% ভোট গণনা সম্পন্ন হয়েছে। l  মিশিগান, ১৬ ইলেকটোরাল ভোট। বাইডেন ৫০.৬ শতাংশ এবং ট্রাম্প ৪৭.৯ শতাংশ এবং ৯৯ শতাংশ ভোট গণনা সম্পন্ন হয়ে গেছে।

Spread the love

সার্চ/অনুসন্ধান করুন

USA JOBS LINKS