মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি.
SKF Company

মন্দিরের পদ ছাড়া কি সেবা করা যায়না? ধর্ম চর্চা বা মানুষের সেবা কি?

০৬-ফেব্রু-২০২১ | Dhaka Desk | 128 views

অর্জুন কর্মকার,নিউইয়র্ক। সনাতন ধর্ম কে Role Model হিসাবে উপস্থাপন করতে হলে সকল সনাতন ধর্মাবলম্বী দের মধ্যে মন্দির নিয়ে কাদা ছোড়াছড়ি বন্ধ করতে হবে । আজ কিছুদিন হল যা কিছু দেখছি সে বিশয়ে কিছু লেখার প্রয়াস, বিনয়ের সাথে পড়ার অনুরোধ করছি ।

১. একটা মন্দির হলো Non-profit Organization to Serve Public & Community Interest. সাধারন সদস্য বা ভক্তের সহযোগীতা ছাড়া মন্দির প্রতিষ্ঠা বা চালানো অসম্ভব ।সেই সাধারন ভক্তরাই কিছু মানুষকে Select করে মন্দির পরিচালনা তথা Community র সেবা করার গুরু দায়িত্ব দেন।লোভ,হিংসা ও কোন প্রত্যাশা ছাড়া যারা এই দায়িত্ব  গ্রহন করেন তাদের মধ্যে এতসমস্যা থাকবে কেন?  ধর্ম চর্চা বা মানুষের সেবা কি মন্দিরের কমিটির পদ না পেয়ে করা যায়না? যদি তা না হয় তাহলে এই পদগুলোতে কি Unknown Benefit  আছে  যার  জন্য আমরা কতটা হীন কাজ করি তার জলন্ত উদাহরণ বর্তমান মন্দির কমিটির অবস্থা !! 

২. ভগবানের মন্দির সবার জন্য উন্মুক্ত ।কাউকে মন্দিরের বাহিরে রেখে, মন্দিরের সবকিছুই নিজেদের অনুকুলে ভাবাটা কতটুকু সমীচীন ? মন্দিরের ইতিহাস বলে দেয় তাতে হিতে বিপরীত হয় today or tomorrow.  আর যারা চিন্তা করেন ধর্ম চর্চা বা মানবতার কাজ কমিটিতে থাকা ছাড়া করা যায়না তাদের বলছি,আপনারা যদি মনে করেন বিরোধীরা অনেক অনিয়ম করছেন, As an active member আপনারা prove সহকারে সকল সদস্যদের অবগত করে  সচেতন করতে পারেন। মিটিংয়ে According to Constitution কমিটির লোকজন আপনাদের সকল প্রশ্নের সন্তোষজনক জবাব দিতে বাধ্য।

৩.Online এর কল্যানে দেখি আপনারা একে অন্যকে যে ভাষায় আক্রমণ করেন তাতে  as a member আমরা খুবই লজ্জিত, এই ভেবে যে আপনারা আমাদের সমাজ, সংস্কৃতি তথা ধর্ম রক্ষার দায়িত্বে আছেন? আমরা আরো দেখি আপনারা একে অন্যকে দোষেন যে বাহিরের লোকদেরকে Group এ add করে শক্তি বাড়াতে সচেষ্ট !  এটা একটা সার্বজনীন মন্দির সনাতন ধর্মের সকলভক্তদের জন্য মন্দির সর্বদাই উন্মুক্ত ।তবে সত্যি যদি কোন Group নিজেদের শক্তি বাড়াতে ভক্ত রুপি কোন বদ লোকদের আপনাদের দলে টানেন – সাময়িকভাবে নিজেদের Benefited ভাবলেও তারাই  আপনাদের গলার কাঁটা হবে একদিন। সে উদাহরণও মন্দিরের বিগত  দিনগুলোর দিকে তাকালেই পাওয়া যায়।

৪. পুরাতন, নতুন সকল active member দের নিকট বিনীত অনুরোধ কোন group কে  উসকে না দিয়ে,মন্দির রক্ষার্থে প্রয়োজনে এক হয়ে বসে আলোচনা সাপেক্ষে সমাধানের  চেষ্টা করুন।               

৫. একটা সংসারে চলতে গেলেও আপনজনদের মাঝেও মনোমালিন্য হয়,আর এটাতো  মন্দির,মতের অমিল হতেই পারে – তা একমাত্র বসে বিনয়ের সাথে আলাপ আলোচনা করে  সমাধান করা যায়। শুধুমাত্র সদিচ্ছার দরকার। এই সদিচ্ছার কাজটি শুরু করতে হয় অভিভাবকদের থেকে। মন্দিরের যেকোন সুনাম বা দুর্নাম এই অভিভাবকদের উপর বরতায়। আপনারা কোন group বা ব্যক্তির পক্ষে থাকলে সমাধান করবে কে?

৬. পুরো পৃথিবী একটা সংকটময় সময়ের মধ্য যাচ্ছে , America তেই about ৫লক্ষ্য মানুষ মারা গেছে !!!! এই মহামারীর সময় ও আপনাদের শুধু ক্ষমতা এবং power দেখানো দরকার ? মাঝে মাঝে সন্দেহ হয় আপনারা সত্যিই কি  ধর্মে বিশ্বাস করেন ? ধর্ম আমাদেরকে লোভ, হিংসা,দম্ভ থেকে বিরত  এবং বিনয়ী, নম্র ,  ভদ্র ও মানবতাবাদী হতে শিখায় !! মন্দির প্রতিষ্ঠার আজ ১০/১২বৎসরেও আমাদের মধ্য এগুলোর বড় অভাব!!  জানিনা আমরা কি ধর্ম চর্চা করি ?

৭. আপনারা যদি মনে করেন আপনাদের মান সন্মান অনেক শক্ত,আপনাদেরও  কিছু যায় আসেনা,তাহলে কিছুই বলার নাই…

পরিশেষে আপনাদের সকলের কাছে বিনীত অনুরোধ সকল মান অভিমান দূরে ঠেলে,  আমাদের সমাজ সংস্কৃতি তথা সঠিক ধর্মচর্চার উদ্দেশ্য , মানুষের হাসির পাত্র না হয়ে ,  উক্ত পরিস্থিতি সমাধানে বিনয়ের সাথে এগিয়ে আসবেন সেই প্রত্যাশায় সাধারন সদস্যরা রইলাম।

  —নমস্কার

অর্জুন কর্মকার, নিউইয়র্ক।

Spread the love

সার্চ/অনুসন্ধান করুন

USA JOBS LINKS